আল্লাহ্ তোমাকে দুনিয়া ও আখিরাতের চিন্তা হতে মুক্তি দিবেন

Dorud Sorif er Fozilot 11

Dorud Sorif er Fozilot ৩২. হান্নাদ রহ:……হযরত তুফায়ল ইবনে উবাই ইবন কা’ব তার পিতা উবাই ইবনে কা‘ব রা: থেকে বর্ণিত, তিনি বলেন, রাত্রির দুইতৃতীয়াংশ অতিবাহিত হওয়ার পর রাসূলুল্লাহ্ স: উঠে দাঁড়াতেন। বলতেনঃ হে লোক সকল, তোমরা আল্লাহ্ তা‘আলাকে স্মরণ করো, তোমরা আল্লাহ্ তা‘আলাকে স্মরণ করো। প্রথম শিংগা ধ্বনির সময় আসছে …

Read More »

নিশ্চয়ই আমার উপর দরূদ পাঠ তোমাদের গুনাহ ক্ষমার কারণ হবে

dorud sharif er fojilot 10

Dorud Sharif er Fojilot ২৯. মুহাম্মাদ ইবনে সালামাহ্ মুরাদিউ রহ:…… হযরত আব্দুল্লাহ্ ইব্‌ন আমর (রা:) থেকে বর্ণিত যে, তিনি রাসূলুল্লাহ স:- কে বলতে শুনেছেন: তোমরা যখন মুআয্‌যিনকে আযান দিতে শোন তখন তোমরাও তা বলবে যা সে বলেছে। এরপর আমার উপর দরুদ পাঠ করবে। যে ব্যক্তি আমার উপর একবার দরুদ পাঠ …

Read More »

আমার উপর দরুদ শরীফ পাঠ করা হলো পুলসিরাতের উপর নূর

durood shareef er fojilot 09

Durood Shareef er Fojilot ২৬. হযরত আবূ হুরায়রা রা: হতে বর্ণিত, তিনি বলেন,রাসূলুল্লাহ্ স: বলেছেনঃ আমার উপর দরুদ শরীফ পাঠ করা হলো পুলসিরাতের উপর নূর, সুতরাং যে ব্যক্তি জুমু‘আর দিনে আমার উপর আশিবার দরূদ পাঠ করবে মহান আল্লাহ্ তা‘আলা তার আশি বছরের গুনাহ্ ক্ষমা করে দিবেন। (জামেয়ে আল-কাবীর, ১ম খন্ড, …

Read More »

একবার দরুদ পাঠ করলে আল্লাহ্ তা‘আলা দশটি নেকী লিখবেন

darod sarif er fazilot 08

Darod Sarif er Fazilot ২২. হযরত বারা ইবন ‘আযিব রা: থেকে বর্ণিত যে, নবী করীম স: বলেছেন, যে ব্যক্তি আমার প্রতি একবার দরুদ পাঠ করবে, আল্লাহ্ তা‘আলা তার জন্য দশটি নেকী লিখবেন। তার দশটি গুনাহ মুছে দিবেন এবং এর বিনিময়ে দশটি মর্যাদা বৃদ্ধি করে দিবেন। আর এগুলো দশটি দাস-মুক্তির পুণ্যের …

Read More »

একবার দরুদ পাঠ করলে আল্লাহ্ দশ বার রহমত বর্ষণ করবেন

Darud Shorif er Fozilot 07

Darud Shorif er Fozilot ১৮. রাসূল স: থেকে বর্ণিত আছে যে, তিনি স: ইরশাদ করেন: যে ব্যক্তি আমার উপর একবার দরুদ পাঠ করবে, আল্লাহ্ তা’য়ালা তার উপর দশ বার রহমত বর্ষণ করবেন এবং তার জন্য দশটি নেকী লেখা হবে। (তিরমিযী শরীফ, ২য় খন্ড, পৃ:নং-১৬৭, বিতর অধ্যায়, হাদীস নং-৪৮৪, ইফাবা ) …

Read More »

একবার দরুদ পাঠ করলে আল্লাহ দশটি গুনাহ মিটিয়ে দিবেন

Darud Sarif er Fazilot 06

Darud Sarif er Fazilot ১৫. হযরত আয়েশা রাঃ থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ সঃ বলিয়াছেন, ‘এরুপ কোন লোক নাই, যে আমার উপর দরুদ পাঠ করে অথচ উহা লইয়া একজন ফেরেশতা উর্ধ্বে আরোহণ করেনা। সে উহা লইয়া করুণাময় আল্লাহ তা’আলার সামনে উপস্থিত হয়। তখন মহান আল্লাহ্‌ তা’আলা বলেন, ‘তোমরা ইহা লইয়া …

Read More »

আল্লাহ তা’‌আলা মুহাম্মাদ স:-কে তাঁর যোগ্য প্রতিদান দান করুন

darood sorif er fojilot 05

Darood Sorif er Fazilot ১২. হযরত ইবনে আব্বাস রা: থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ স: বলেছেনঃ যে ব্যক্তি বলবে, জাযাল্লাহু আন্না মুহাম্মাদান মাহুয়া আহলুহু অর্থাৎ আল্লাহ তা’‌আলা মুহাম্মাদ স:-কে তাঁর যোগ্য প্রতিদান দান করুন। এক হাজার দিন পর্যন্ত সত্তরজন লিখক ফিরিশতা এর পূণ্য লিখতে লিখতে ক্লান্ত হয়ে যাবেন। (তিবরানী শরীফ, …

Read More »

প্রতি শুক্রবারে আমার উম্মতের দরুদ আমার কাছে পেশ করা হয়

dorud sorif

Dorud Sorif er Fojilot ৯. হযরত মূসা আ:-এর প্রতি দরুদ পাঠের নির্দেশঃ আল্লাহ পাক হযরত মূসা আ:-এর নিকট বলে পাঠালেন, হে মূসা! তোমার কথা তোমার জিহবার যতটুকু কাছে, তোমার হৃদস্পন্দন তোমার হৃদয়ের যতটা নিকটে, তোমার শ্রবণশক্তি তোমার শ্রবণেন্দ্রিয়ের সাথে যতটা ঘনিষ্ট, তুমি যদি চাও যে তার চেয়েও তোমার আমার সম্পর্ক …

Read More »

অধিক দরুদ পাঠকারী কিয়ামতের দিন আমার নিকটতম হইবে

darud sharif

Darud Sharif er Fazilot ৫. আবু সাঈদ মালিনিউ রহ:…… হযরত আনাস ইবনে মালিক রা: সূত্রে রাসূলুল্লাহ স: থেকে বর্ণিত। তিনি স: বলেছেন, পরস্পর ভালবাসা পোষণকারী দু’জন বান্দা যখন একে অপরের সাথে সাক্ষাত করে এবং তারা উভয়ে নবী করীম স:- এর উপর দরুদ পাঠ করে, তখন তারা বিচ্ছিন্ন হওয়ার পূর্বেই তাদের …

Read More »

দরুদ আমার নিকট পৌঁছে থাকে এবং আমি তাকে দু’আ দিয়ে থাকি

durood sharif er fojilot

Durood Sharif er Fojilot ২. হযরত আনাস ইবনে মালিক রা: থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ স: বলেছেনঃ যে কেউ আমার প্রতি দরুদ প্রেরণ করে, তার এ দরুদ আমার নিকট পৌঁছে থাকে এবং আমি তাকে দু’আ দিয়ে থাকি। উপরন্তু তার জন্য দশটি নেকী লেখা হয়ে থাকে। (তিবরানী শরীফ) (মেশকাতুল মাসাবীহ, ৩য় …

Read More »

আল্লাহ তা’আলার নৈকট‌্য লাভের জন্য দরূদ শরীফের বিকল্প নেই

durood sharif er fojilot

Durood Sharif er Fojilot আল্লাহ তা’আলার নৈকট‌্য লাভের জন্য দরূদ শরীফের বিকল্প নেই অর্থঃ নিশ্চয়ই আল্লাহ তা’য়ালা নবী স:-এর প্রতি দরূদ পড়েন (অনুগ্রহ করেন) এবং তাঁর ফেরেশতাগণও নবী স:- এর প্রতি দরূদ পড়ে (অনুগ্রহ প্রার্থনা করে)। হে ঈমানদারগণ! তোমরাও নবী স:-এর প্রতি দরূদ পড় (অনুগ্রহ প্রার্থনা কর, দু’আ কর) এবং …

Read More »