darood sharif er fazilot 15

যারা আমার উপর দরুদ পড়ে না, তারা হবে কিয়ামতের দিন হতভাগ্য

Darood Sharif er Fazilot

দরুদ শরীফ সম্পর্কে সংকলিত হাদীস শরীফ-৪৩৪৩. হযরত আবূ সাঈদ রা: থেকে বর্র্ণিত। নবী স: বলেছেনঃ কোন সম্প্রদায় যখন কোন মজলিসে বসে কিন্তু সেখানে তারা যদি আল্লাহ্ তা’য়ালার যিকির না করে এবং তাদের নবী স:এর উপর দরুদ শরীফ পাঠ না করে, তবে তা তাদের জন্য আফসোস ও ক্ষতির কারণ হবে। ইচ্ছা করলে আল্লাহ্ তা’য়ালা তাদের শাস্তি দিবেন আর ইচ্ছা করলে তাদের তিনি মাফ করে দিবেন। (ফাতহুল কাবীর, ৩য় খন্ড, পৃ:নং-৮৫, হাদীস নং-১০৫৯৮) (জামে‘য়েল কাবীর, ১ম খন্ড, পৃ:নং-২০৮১৮, হাদীস নং-৬৬০, হরফে মীম পরি:) (জামে‘য়েস ছগীর মেন হাদীসেল বাশীর, ২য় খন্ড, পৃ:নং-২৭১, হাদীস নং-৭৮৮৬)

যারা আমার উপর দরুদ পড়ে না, তারা হবে কিয়ামতের দিন হতভাগ্য

দরুদ শরীফ সম্পর্কে সংকলিত হাদীস শরীফ-৪৪৪৪. আব্দুর রহমান রহ:……হযরত আবূ হুরায়রা রা: হতে বর্ণিত আছে যে, নবী স: বলেছেন: “যারা কোন মজলিসে বসে এবং আল্লাহ্ তা’য়ালার যিকর ও নবী স:-এর উপর দরুদ পাঠ ছাড়াই উঠে পড়ে তারা কিয়ামতের দিন হতভাগ্য হবে। আল্লাহ্ তা’য়ালা ইচ্ছা করলে তাদেরকে শাস্তিও দিতে পারেন এবং ইচ্ছা করলে ক্ষমাও করে দিতে পারেন। (সহীহ ইবনে হিব্বান, ২য় খন্ড, পৃ:নং-৩৫১, হাদীস নং-৫৯০) (মুসনাদে আহমাদ ইবনে হাম্বল, ২য় খন্ড, পৃ:নং-৪৬৩, মুসনাদে আবূ হুরায়রা রা: পরি:) (মুসনাদে আহমাদ, ১৬তম খন্ড, পৃ:নং-৪৩) (মুস্তাদরেকে আ‘লাস সহীহাইনে, ১ম খন্ড, পৃ:নং-৬৬৮, দু‘আ ও তাকবীর পরি:) (মুসনাদে জামে‘য়ে, ৪৩তম খন্ড, পৃ:নং-৪৪৩, হাদীস নং-১৪৩২০, হরফে মীম পরি:) (জামে‘য়েল কাবীর, ১ম খন্ড, পৃ:নং-২০৪৬৮, হাদীস নং-৩১০, হরফে মীম পরি:) (সহীহেল আজকার, ১ম খন্ড, পৃ:নং-২৩) (মুসনাদে সাহাবা, ৬ষ্ঠ খন্ড, পৃ:নং-৫৯, মুসনাদে আব্দুর রহমান ইবনে ছখরা রা:পরি:) (কানঝুল উম্মাল ফি সুনানেল আক্বওয়াল, ৯ম খন্ড, পৃ:নং-১৪৯, হাদীস নং-২৫৪৫৮) (বুলুগুল মারাম, ১ম খন্ড, পৃ:নং-৫৯৬, হাদীস নং-১৫৪১, যিকির পরি:) (ফায়জুল ক্বাদীর, ৫ম খন্ড, পৃ:নং-৫২৩, ৫মখন্ড পরিচ্ছেদ) (আদ-দু‘আউ লেত-তিবরানী, ১ম খন্ড, পৃ:নং-৫৩৯) (মাযমা‘উয যাওয়ায়েদ, ১০ম খন্ড, পৃ:নং-৮৩, আল্লাহ্ তা‘আলার যিকির পরিচ্ছেদ) (মাওসু‘আতে আতরাফেল হাদীস, ১ম খন্ড, পৃ:নং-২৪৭৯২৪, মীম পরিচ্ছেদ) এবং আরও অনেকগুলো হাদীস গ্রন্থে রয়েছে।

Darood Sharif er Fazilot

দরুদ শরীফ সম্পর্কে সংকলিত হাদীস শরীফ-৪৫৪৫. আহমাদ ইবনে ইবরাহীম দাওরাক্বী রহ:…..হযরত আবূ হুরায়রা রা: থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ স: বলিয়াছেন: ঐ ব্যক্তির নাসিকা ধুলায় মলিন হউক অর্থাৎ অপমানিত হউক যাহার কাছে আমার নাম উচ্চারিত হইয়াছে অথচ সে দরুদ পাঠ করে নাই, সে ব্যক্তিরও নাসিকা ধুলায় মলিন হউক যাহার কাছে রমজান (মাস) আসিয়াছে অতঃপর চলিয়াও গিয়াছে অথচ সে নিজের গুনাহ মাফ করাইতে পারে নাই এবং সে ব্যক্তিরও নাসিকা ধুলায় মলিন হউক বা অপমানিত হউক যাহার কাছে তাহার পিতা-মাতা বার্ধক্যে উপনীত হইয়াছে অথবা যে কোন একজন বার্ধক্যে পৌঁছিয়াছে অথচ তাহাকে তাহারা বেহেশতে প্রবেশ করায় নাই (অর্থাৎ তাহাদের খেদমতের মাধ্যমে সে বেহেশতে পাওয়ার উপযোগী হয় নাই)। (তিরমিযী শরীফ, ৬ষ্ঠ খন্ড, দু’আ অধ্যায়, পৃ:নং-১৯৭, হাদীস নং-৩৫৪৫, ইফাবা) (মুসনাদে আহমাদ, ১২তম খন্ড, পৃ:নং-৪২১, হাদীস নং-৭৪৫১) (উমদাতুল ক্বারী শরহে সহীহ বুখারী, ১ম খন্ড, পৃ:নং-২৯, ওহীর সূচনা পরিচ্ছেদ) (সহীহ ইবনে হিব্বান, ৩য় খন্ড, পৃ:নং-১৮৯, হাদীস নং-৯০৮) (মুস্তাদরেকে আ‘লাস সহীহাইনে, ১ম খন্ড, পৃ:নং-৭৩৪, হাদীস নং-২০১৬) (মুসনাদে বাজ্জার, ২য় খন্ড, পৃ:নং-৪৩৭, হাদীস নং-৮৪৬৫) (মুসনাদে জামে‘য়ে, ৪৩তম খন্ড, পৃ:নং-৭৭, হাদীস নং-১৪০২৪) (জামে‘য়েল কাবীর, ১ম খন্ড, পৃ:নং-১২৮৯৪, হাদীস নং-১২৯০৩, হরফে রা পরি:) (সহীহ কুনুঝুস সুন্নাহ্, ১ম খন্ড, পৃ:নং-৫০, হাদীস নং-৮) (কানঝুল উম্মাল ফি সুনানেল আকওয়াল, ১ম খন্ড, পৃ:নং-৪৮৯, হাদীস নং-২১৪৮) (মুসনাদে সাহাবা, ৫ম খন্ড, পৃ:নং২৮৮, মুসনাদে আব্দুর রহমান ইবনে ছখরা রা:পরি:) (ফাতহুল কাবীর, ২য় খন্ড, পৃ:নং-১২৯, হাদীস নং-৬৬১৪) (ফাতহুল বারী, একাদশ খন্ড, পৃ:নং-১৬৮) (তাফসীরে মাজহারী, ১ম খন্ড, পৃ:নং-৫৩৪৫, তাফসীরে মাজহারী অনুচ্ছেদ) (তাফসীর ইবনে কাসীর, ৬ষ্ঠ খন্ড, পৃ:নং-৪৬৮, ৫৬নং অনুচ্ছেদ) এবং আরও অনেকগুলো হাদীস গ্রন্থে রয়েছে।

Check Also

darud sarif er fajilot 13

যে আমার উপর দরূদ পড়ে না সে বেহেশতের বিপরীত পথে চলছে

Darud Sarif er Fajilot ৩৭. আমর ইবনে দীনার রহ: হযরত আবূ জাফর রা: থেকে বলেছেন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *