darood sarif er fazilot 14

প্রত্যেক দু‘আ পর্দায় আবৃত থাকে, যে পর্যন্ত না দরুদ পাঠ করা হয়

Darood Sarif er Fazilot

দরুদ শরীফ সম্পর্কে সংকলিত হাদীস শরীফ-৪০৪০. হযরত আলী রা: থেকে বর্ণিত। তিনি বলেছেনঃ প্রত্যেক দু‘আ পর্দায় আবৃত থাকে, যে পর্যন্ত না মুহাম্মাদ স:-এর উপর দরুদ পাঠ করা হয়। (বায়হাকী শরীফ, ২য় খন্ড, পৃ:নং-২১৫) (শো‘য়াবুল ঈমান, ৩য় খন্ড, পৃ:নং-১৩৫) (জামে‘য়ে আল-আহাদীস, ৩১তম খন্ড, পৃ:নং-৩৯৩, মুসনাদে আলী ইবনে আবী তালিব রা:পরি:) (জামে‘য়েল কাবীর, ১ম খন্ড, পৃ:নং-১৫৮২৮, হাদীস নং-৬৯৬, হরফে কাফ পরি:) (সহীহ কুনুঝুস সুন্নাহ্, ১ম খন্ড, পৃ:নং-২৩, হাদীস নং-১০) (কানঝুল উম্মাল ফি সুনানেল আকওয়াল, ১ম খন্ড, পৃ:নং-৪৯০, হাদীস নং-২১৫৩) (মেশকাতুল মাসাবীহ, ৩য় খন্ড, পৃ:নং-৫৬৯) (ফাতহুল কাবীর, ২য় খন্ড, পৃ:নং-৩০৪, হাদীস নং-৮৭১৯) (আল-মু‘জামুল আওসাতে, ১ম খন্ড, পৃ:নং-২২০) (মাওসূ‘আতে আতরাফেল হাদীস, ১ম খন্ড, পৃ:নং-২১১২৬০, হরফে কাফ অনুচ্ছেদ) (মাযমা‘উয যাওয়ায়েদ, ১০ম খন্ড, পৃ:নং-২৪৭, হাদীস নং-১৭২৭৮) (ফায়জুল ক্বাদীর, ৬ষ্ঠ খন্ড, পৃ:নং-১৬৭) (আত-তারগীব ওয়াত্-তারহীব, ২য় খন্ড, পৃ:নং-৫৭৪, যিকর ও দু‘আ অধ্যায়, হাদীস নং-৩২, ইফাবা) (জামে‘য়েস ছগীর মেন হাদীসেল বাশীর, ২য় খন্ড, পৃ:নং-১৬০, হাদীস নং-৬৩০৩)

দরুদ শরীফ সম্পর্কে সংকলিত হাদীস শরীফ-৪১৪১. হযরত আনাস রা: থেকে বর্ণিত। তিনি বলেছেনঃ প্রত্যেক দু‘আ পর্দায় আবৃত থাকে, যে পর্যন্ত না মুহাম্মাদ স:-এর উপর দরুদ পাঠ করা হয়। (জামে‘য়েল কাবীর, ১ম খন্ড, পৃ:নং-১৫৮২৮, হাদীস নং-৬৯৬, হরফে কাফ পরি:) (সহীহ কুনুঝুস সুন্নাহ্, ১ম খন্ড, পৃ:নং-২৩, হাদীস নং-১০) (কানঝুল উম্মাল ফি সুনানেল আকওয়াল, ১ম খন্ড, পৃ:নং-৪৯০, হাদীস নং-২১৫৩) (ফাতহুল কাবীর, ২য় খন্ড, পৃ:নং-৩০৪, হাদীস নং-৮৭১৯) (জামে‘য়েস ছগীর মেন হাদীসেল বাশীর, ২য় খন্ড, পৃ:নং-১৬০, হাদীস নং-৬৩০৩)

Darood Sarif er Fazilot

দরুদ শরীফ সম্পর্কে সংকলিত হাদীস শরীফ-৪২৪২. হযরত আবূ হুরায়রা রা: থেকে বর্র্ণিত। নবী স: বলেছেন: কোন সম্প্রদায় যখন কোন মজলিসে বসে কিন্তু সেখানে তারা যদি আল্লাহ্ তা’য়ালার যিকির না করে এবং তাদের নবী স:এর উপর দরুদ শরীফ পাঠ না করে, তবে তা তাদের জন্য আফসোস ও ক্ষতির কারণ হবে। ইচ্ছা করলে আল্লাহ্ তা’য়ালা তাদের শাস্তি দিবেন আর ইচ্ছা করলে তাদের তিনি মাফ করে দিবেন। (তিরমিযী শরীফ, ৬ষ্ঠ খন্ড, পৃ:নং-৯২-৯৩, দু’আ অধ্যায়, হাদীস নং-৩৩৮০, ইফাবা) (মুসনাদে আহমাদ, ২০তম খন্ড, পৃ:নং-৯, মুসনাদে আবূ হুরায়রা রা: অনুচ্ছেদ) (শরহে সহীহ বুখারী, ১০ম খন্ড, পৃ:নং-১৩৬, কিতাবুত্ তা‘বির অনুচ্ছেদ) (মুসনাদে আব্দুল্লাহ্ ইবনে মুবারক, ১ম খন্ড, পৃ:নং-৪৯, হাদীস নং-৪৮ ) (রিয়াজুস সলেহীন, ২য় খন্ড, পৃ:নং-৪২০, হাদীস নং-৮৩৭) (বুলুগুল মারাম, ১ম খন্ড, পৃ:নং-৫৯৬, হাদীস নং-১৫৪২, যিকর পরি:) (ফাতহুল কাবীর, ৩য় খন্ড, পৃ:নং-৮৫, হাদীস নং-১০৫৯৮) (জামে‘য়েল কাবীর, ১ম খন্ড, পৃ:নং-২০৮১৮, হাদীস নং-৬৬০, হরফে মীম পরি:) (জামে‘য়েল উসূল ফি আহাদীসের রাসূল স:, ৪র্থ খন্ড, পৃ:নং-৪৭২, হাদীস নং-২৫৫৭) (মুসনাদে সাহাবা, ৬ষ্ঠ খন্ড, পৃ:নং-৫৬, মুসনাদে আব্দুর রহমান ইবনে ছখরা রা:পরি:) (মেশকাতুল মাসাবীহ, ৭ম খন্ড, পৃ:নং-৮১৬) (জামে‘য়েস ছগীর মেন হাদীসেল বাশীর, ২য় খন্ড, পৃ:নং-২৭১, হাদীস নং-৭৮৮৬) (তাফসীর ইবনে কাসীর, ৬ষ্ঠ খন্ড, পৃ:নং-৪৬৯, ৫৬নং অনুচ্ছেদ) এবং আরও অনেকগুলো হাদীস গ্রন্থে রয়েছে।

প্রত্যেক দু‘আ পর্দায় আবৃত থাকে, যে পর্যন্ত না দরুদ পাঠ করা হয়

Check Also

darud sarif er fajilot 13

যে আমার উপর দরূদ পড়ে না সে বেহেশতের বিপরীত পথে চলছে

Darud Sarif er Fajilot ৩৭. আমর ইবনে দীনার রহ: হযরত আবূ জাফর রা: থেকে বলেছেন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *